অবিবাহিত হুররাম গর্ভবতী হওয়ায়, ছাড়লেন ‘সুলতান সুলেমান’!

প্রাইমনিউজবিডি.কম

ঢাকা: হঠাৎ করেই বদলে গেছে ‘হুররাম সুলতান’। এক, দুই করে পঞ্চম মৌসুম  পর্যন্ত যারা ‘সুলতান সুলেমান’ ধারাবাহিকের দর্শক, তারা একটু ধাক্কাই  খেয়েছেন। সবাই জানতে চাইছেন কী এমন হলো যে এই ধারাবাহিকের জনপ্রিয় চরিত্র  হুররাম সুলতানে পরিবর্তন আনতে হলো?

হুররাম সুলতানের ভূমিকায় অভিনয় করা অভিনেত্রীর নাম মারিয়েম জারলি। ২০১০  সালে যখন তুরস্কের ৬০০ বছরের অটোমান সাম্রাজ্যের অন্যতম সফল শাসক সুলতান  সুলেমানকে নিয়ে একটি টিভি ধারাবাহিক নির্মাণের উদ্যোগ নেওয়া হয়।; আর তখন  সুলতান সুলমানের অপূর্ব সুন্দরী দাসী থেকে স্ত্রী বনে যাওয়া হুররামের  চরিত্রে অভিনয় করার জন্য ডাক পান মারিয়েম।

২০১১ সাল থেকে এই ধারাবাহিকের শুটিং শুরু হয়। তখন জার্মানি থেকে তুরস্কে  চলে আসেন মারিয়েম। ওঠেন একটি হোটেলে। যত দিন তিনি এই ধারাবাহিকটির সঙ্গে  যুক্ত ছিলেন, তত দিন তার বাস এই হোটেলেই ছিল। এখানে থেকেই ধারাবাহিকটির  যাবতীয় কাজ করেছেন তিনি। এমনকি ২০১২ সালে এই চরিত্রে অভিনয়ের জন্য সেরা  অভিনেত্রীর পুরস্কারও তিনি এই হোটেল থেকে গিয়েই নিয়েছেন।

ধারাবাহিকটিতে কাজ করার সময় তুরস্কের এক প্লেবয় চান এতেশের প্রেমে পড়েন  তিনি। যদিও দুই সন্তানের জনক চানের সঙ্গে সম্পর্কটা শুধুই বন্ধুত্বের মধ্যে  সীমাবদ্ধ রাখার ব্যাপারে তারা শুরুতে বেশ সতর্ক ছিলেন। তবে শেষ পর্যন্ত  সেটা প্রেমের সম্পর্কে গড়ায়, তাও করুণ প্রেমের।

২০১৩ সালে মে মাসে হঠাৎ করেই ধারাবাহিকটিতে অভিনয় বন্ধ করে দেন মারিয়েম।  জানা গেল, প্রেমিক চান এতেশের কাছ থেকে চূড়ান্ত প্রতারণার শিকার হয়েছেন  তিনি। ওই সময় পাকিস্তানের সাংবাদিক আয়েশা আরমানকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে  মারিয়েম বলেন, ‘আমি ভুল মানুষকে ভালোবেসেছি।’ এর ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে তিনি  বলেন, তার আর চানের মধ্যে সম্পর্কটা ছিল বাইরে খেতে যাওয়া, ঘুরতে যাওয়া  পর্যন্তই। পরিচিতরা চানের মতো প্লেবয়ের সঙ্গে গভীর সম্পর্কে না জড়ানোর  পরামর্শ দিয়েছিল। তাদেরও সম্পর্কটা গভীর করার ভাবনা ছিল না। তবে তিনি নিজেই  একসময় চানের প্রতি দুর্বল হয়ে পড়েন।

মারিয়েম বলছিলেন, যখন প্রেমিক চানকে তিনি জানান যে তাদের জীবনে সন্তান আসতে  যাচ্ছে, তখন প্রেমিকের ভিন্ন রূপ দেখেছেন তিনি। তার ভাষায়, চান এতেশ এ খবর  শুনে বলেন যে এই সন্তানের দায়দায়িত্ব তিনি নিতে পারবেন না। তার ঘরে স্ত্রী  আর দুই সন্তান আছে। ভালো ক্যারিয়ারের কথা চিন্তা করে তিনি গর্ভপাত করার  পরামর্শ দেন মারিয়েমকে।

তবে মারিয়েম জারলি সেটা করেননি। তিনি প্রেমিককে ছেড়েছেন। আর অনাগত সন্তানকে  আঁকড়ে বাঁচার জন্য তুরস্কের সব পাট চুকিয়ে তিনি জার্মানিতে পরিবারের কাছে  চলে যান। ফলে হুররাম চরিত্রটিতে তার আর অভিনয় করা হয়নি।

ধারাবাহিকটির কর্তা ব্যক্তিরা নতুন আরেকজনকে এই চরিত্রে অভিনয়ের জন্য নেন।  বর্তমানে ৩৪ বছর বয়সী এই অভিনেত্রী ফুটফুটে এক মেয়ের মা।

Top