কাল পবত্রি ঈদুল আজহা

eid.jpg

সৈকত ডেক্স

যথাযথ র্মযাদা, র্ধমীয় ভাবগার্ম্ভীয পরবিশে ও উৎসবরে আমজেে আগামীকাল শনবিার সারাদশেে পবত্রি ঈদুল আজহা উদযাপতি হব।ে ঈদ মোবারক। র্ধমপ্রাণ মুসলমানরা ঈদ নামাজ ও পশু কোরবানীর মধ্যদয়িে পালন করবে অন্যতম বৃহত্তম এই র্ধমীয় উৎসব। ঈদরে দনি সকাল ৮টায় রাজধানী ঢাকায় প্রধান ঈদ জামাত জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে অনুষ্ঠতি হব।ে হযরত ইবরাহীম (আঃ)-এর আত্মত্যাগ ও অনুপম আর্দশরে প্রতীকী নর্দিশন হসিবেে প্রায় সাড়ে ৪ হাজার বছর আগে থকেে শুরু হয় কোরবানরি এই প্রচলন। আল্ল¬াহ রাব্বুল আলামীনরে নর্দিশেে হজরত ইবরাহীম (আঃ) তার প্রাণপ্রয়ি পুত্র হজরত ইসমাইল (আঃ)-কে কোরবানি করতে উদ্যত হয়ছেলিনে। ওই অনন্য ঘটনার স্মরণইে ঈদুল আজহায় পশু কোরবানরি এ রওেয়াজ চালু হয়। মহান আল্ল¬¬াহপাকরে প্রতি আনুগত্য প্রকাশ, তাঁর সন্তুষ্টি র্অজন এবং তাঁরই রাস্তায় র্সবােচ্চ আত্মত্যাগরে এ ঐতহিাসকি ঘটনার ধারাবাহকিতায় মুসলমি বশ্বিে কোরবানি ও ঈদুল আজহা উদযাপতি হয়ে আসছ।ে মুসলমি সম্প্রদায়রে অন্যতম প্রধান এ র্ধমীয় উৎসব উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামদি ও প্রধানমন্ত্রী শখে হাসনিা দশেবাসীকে শুভচ্ছো ও অভনিন্দন জানয়িে পৃথক বাণী দয়িছেনে। বরিোধীদলীয় নতো বগেম রওশন এরশাদও এ উপলক্ষে দশেবাসীকে শুভচ্ছো জানয়িে বাণী প্রদান করছেনে। ঈদরে দনি বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামদি এবং গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শখে হাসনিা সমাজরে বভিন্নি স্তররে মানুষ ও আমন্ত্রতি অতথিদিরে সঙ্গে ঈদরে শুভচ্ছো বনিমিয় করবনে। মুসলমিদরে র্ধমীয় এ উৎসব উপলক্ষে বভিন্নি রাজনতৈকি দল, সামাজকি ও সাংস্কৃতকি সংগঠনরে নতেৃবৃন্দও দশেবাসীকে ঈদ শুভচ্ছো জানয়িছেনে। এ উপলক্ষে শুক্রবার থকেে রোববার র্পযন্ত তনি দনিরে সরকারি ছুটি ঘোষণা করা হয়ছে।ে নগরীর লাখ লাখ বাসন্দিা গ্রামরে বাড়তিে আপনজন ও আত্মীয়-স্বজনদরে সঙ্গে ঈদরে খুশি ভাগাভাগি করতে ইতোমধ্যে রাজধানী ছড়েে গয়িছেনে এবং অনকেে যাচ্ছনে। ঈদ উপলক্ষে বাংলাদশে রলেওয়,ে বআিরটসি,ি বাংলাদশে অভ্যন্তরীণ নৌপরবিহন সংস্থা (বআিইডব্ল¬ি¬¬¬উটসি)ি, বাংলাদশে নৌপরবিহন র্কতৃপক্ষ এবং অন্যান্য বসেরকারি পরবিহন সংস্থা বপিুলসংখ্যক যাত্রীদরে যাতায়াতরে জন্য বশিষে ব্যবস্থা গ্রহণ করছে।ে পবত্রি এ দনিটতিে উৎসবরে আমজে দতিে রাজধানীর বভিন্নি গুরুত্বর্পূণ সড়ক ও সড়ক দ্বীপসমূহে জাতীয় ও ঈদ মোবারক খচতি পতাকা দয়িে সুশোভতি করা হয়ছে।ে এর পাশাপাশি সকল সরকার-িবসেরকারি ভবনে জাতীয় পতাকা ও ঈদ মোবারক খচতি পতাকা উত্তোলন করা হব।ে এছাড়াও নগরীর গুরুত্বর্পূণ সরকারী ভবনগুলো আলোকসজ্জায় সজ্জতি করা হব।ে ঈদুল আজহা উপলক্ষে কন্দ্রেীয় কারাগারসহ দশেরে সকল কারাগার, সরকারি হাসপাতাল, ভবঘুরে কল্যাণ কন্দ্রে, বৃদ্ধাশ্রম, শশিুসদন, ছোটমনি নবিাস, সামাজকি প্রতবিন্ধী কন্দ্রে, সরকারি আশ্রয় কন্দ্রে, সফে হোম্স, দুস্থ কল্যাণ কন্দ্রে এবং শশিু ও মাতৃসদনে উন্নতমানরে খাবার পরবিশেন করা হব।ে ঈদরে দনি সকাল ৮টায় দশেরে প্রধান ঈদ জামাত জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে অনুষ্ঠতি হব।ে জাতীয় ঈদগাহে ঈদুল আজহার নামাজে ইমামতি করবনে বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজদিরে সনিয়ির পশে ইমাম মাওলানা মুহাম্মদ মজিানুর রহমান। বকিল্প ইমাম হসিবেে উপস্থতি থাকবনে ঢাকার মরিপুররে জাময়ো আরাবয়িা’র শায়খুল হাদীস মাওলানা সয়ৈদ ওয়াহদিুয্যামান। বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজদিে র্পযায়ক্রমে ৫টি ঈদ জামাত অনুষ্ঠতি হব।ে বায়তুল মুকাররমে প্রথম জামাত সকাল ৭টা, দ্বতিীয় জামাত সকাল ৮টা, তৃতীয় জামাত সকাল ৯টা, চর্তুথ জামাত সকাল ১০টা এবং পঞ্চম ও র্সবশষে জামাত সকাল ১০টা ৪৫ মনিটিে অনুষ্ঠতি হব।ে জাতীয় সংসদ সচবিালয়রে উদ্যোগে সংসদ ভবনরে দক্ষণি প্ল¬¬াজায় সকাল সাড়ে ৭টায় ঈদরে নামাজ আদায়রে ব্যবস্থা করা হয়ছে।ে ঢাকা বশ্বিবদ্যিালয় কন্দ্রেীয় মসজদিে ঈদরে দুটি জামাত অনুষ্ঠতি হব।ে প্রথমটি সকাল ৮টা ও পররেটি ৯টায়। এ ছাড়া সকাল ৮টায় সলমিুল্লাহ মুসলমি হল মইেন গটে সংলগ্ন মাঠ ও শহীদুল্লাহ হল লনে ঈদরে জামাত অনুষ্ঠতি হব।ে রাজধানীর সদ্ধিশ্বেরী হাইস্কুল জামে মসজদিে ঈদুল আজহার জামাত সকাল ৮টায় অনুষ্ঠতি হব।ে রাজধানীর দুই সটিি র্কপােরশেনরে উদ্যোগে ৪০৯টি স্থানে ঈদ জামাতরে ব্যবস্থা করা হয়ছে।ে এর মধ্যে ঢাকা দক্ষণি সটি করপোরশেন এলাকায় জাতীয় ঈদগাহ’র প্রধান জামাতসহ ইদুল আজহার ২শ’ ২৯টি এবং উত্তর সটিি র্কপােরশেনে ১শ’ ৮০টি জামাত অনুষ্ঠতি হওয়ার কথা রয়ছে।ে দশেরে সবচয়েে বড় ঈদরে জামাত কশিোরগঞ্জরে শোলাকয়িা ঈদগাহ ময়দানে অনুষ্ঠতি হব।ে ঈদরে নামাজ আদায়রে জন্য মুসুল্লদিরে যাতায়াতরে সুবধর্িাথে বশিষে ট্রনে ও বাস চলাচল করব।ে হজরত ইবরাহীম(আঃ) পুত্রকে কোরবানি দয়োর পরীক্ষায় উর্ত্তীণ হওয়ার পর আল্ল¬াহপাকরে নর্দিশেে তনিি জীবদ্দশায় প্রতি বছরই পশু কোরবানরি মাধ্যমে সৃষ্টর্কিতার আনুগত্যরে আর্দশ প্রতষ্ঠিা করনে। আল্লাহ্র পক্ষ থকেে মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সাঃ)ও এ আর্দশ অনুসরণ ও বহাল রাখতে আদষ্টি হন। তনিওি তাঁর জীবদ্দশায় প্রতি বছরই কোরবানি করছেনে এবং তাঁর উম্মতদরে জন্য এ আর্দশ ও প্রথা অনুসরণরে নর্দিশে দয়িে গছেনে। এ আর্দশ অনুসরণরে লক্ষ্যে গোটা মুসলমি জাহানরে পাশাপাশি বাংলাদশেওে ঈদ উদযাপনরে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়ছে।ে র্ধমপ্রাণ মুসলমানগণ আল্ল¬াহর সন্তুষ্টি লাভরে উদ্দশেে পশু কোরবানি দয়োর প্রস্তুতি নয়িছেনে।

Top